শেষের রোমাঞ্চে জয় তুলে নিল ব্রাজিল

খেলাধূলা

শুরুতেই এগিয়ে যাওয়ার পর লম্বা সময় ব্যবধান ধরে রাখে কলম্বিয়া। তবে শেষ দিকে ঠিকই ঘুরে দাঁড়ায় স্বাগতিকরা। রবের্তো ফিরমিনো ও কাসেমিরোর গোলে জয়রথেই থাকল তিতের দল।

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ সময় ভোরে রিও দে জেনেইরোর নিল্তন সান্তোস স্টেডিয়ামে ‘বি’ গ্রুপের ম্যাচে মুখোমুখি হয় দু’দল। তবে ঘটনাবহুল এই ম্যাচে আক্রমণের পসরা সাজিয়েও জয় পেতে বেশ কষ্ট করতে হয় ব্রাজিলকে।

খেলার দশম মিনিটে দুর্দান্ত এক গোলে কলম্বিয়াকে এগিয়ে নেন লুইস দিয়াস। দূরের পোস্টে চমৎকার এক ক্রস করেন হুয়ান কুয়াদরাদো। অরক্ষিত দিয়াস অসাধারণ এক বাইসাইকেল কিকে খুঁজে নেন জাল। ব্রাজিল গোলরক্ষক ওয়েভেরতন অসহায় ছিলেন এসময়।

প্রথমার্ধে অবশ্য কলম্বিয়ার সেভাবে পরীক্ষা নিতে পারেনি ব্রাজিল। দুই একটি প্রচেষ্টা ছিল তবে তা গোলের জন্য যথেষ্ট ছিল না। ফলে পিছিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় তারা।

ম্যাচের ৬৬তম মিনিটে ফাঁকা জাল পেয়েও ব্রাজিলকে এগিয়ে নিতে ব্যর্থ হন নেইমার। ফিরমিনো পেনাল্টি স্পটের কাছে খুঁজে নেন নেইমারকে। পিএসজির এই তারকা ফরোয়ার্ডকে ঠেকাতে লাইন ছেড়ে বেরিয়ে আসেন অসপিনা। তাকে এড়িয়ে ডানদিকে সরে যান নেইমার কিন্তু ফাঁকা জালে বল পাঠাতে পারেননি তিনি। তার শট ব্যর্থ হয় পোস্টে লেগে।

৭৮তম মিনিটে রেনান লোদির ক্রসে ফিরমিনোর জোরালো হেড অসপিনার হাত ফস্কে জড়ায় জালে। এর আগে নেইমারের শট রেফারির গায়ে লাগলে কলম্বিয়ার খেলোয়াড়রা খেলা বন্ধ করে দাঁড়িয়ে থাকে। তবে খেলা চালিয়ে যাওয়ারই ইঙ্গিত দেন রেফারি। তখনই ব্রাজিলের একজন বল বাড়ান লোদিকে। তার ক্রসেই হয় গোল।

গোল বাতিলের জন্য প্রতিবাদ জানান কলম্বিয়ার ফুটবলাররা। ভিএআরের সাহায্যে আর্জেন্টাইন রেফারি নেস্তর পিতানা গোলের বাঁশি বাজালেও থামেনি অসপিনা-কুয়াদরাদোদের প্রতিবাদ। গোলের মিনিট পাঁচেক পর খেলা শুরু হলে আরও উত্তপ্ত হয়ে উঠে পরিস্থিতি।

ম্যাচে দুদলের মোট ৭ খেলোয়াড় হলুদ কার্ড দেখে। পরে রেফারি অতিরিক্ত আরো ১০ মিনিট যোগ করেন। আর এই সময়ের শেষ মিনিটেই বাজিমাত করে ব্রাজিল। নেইমারের কর্নারে চমৎকার হেডে জাল খুঁজে নেন কাসেমিরো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *