তবে কি আবার আসছে কৃষ

বিনোদন

‘অলৌকিক ক্ষমতাসম্পন্ন’ রোহিত মেহরা হিসেবে পর্দায় এসেছিল ভারতীয় সুপারহিরো কৃষ। এ বছর ছবিটির ১৫ বছর পূর্তি হলো। ২০০৬ সালের ২৩ জুন মুক্তি পেয়েছিল ছবিটি। মুক্তির ১৫ বছর পর ছবির অভিনেতা হৃতিক রোশন ঘোষণা দিলেন, ‘কৃষ ফোর’ নির্মিত হবে। সম্প্রতি ইনস্টাগ্রামে কৃষের একটি টিজার পোস্ট করেছেন হৃতিক। এবার কি তবে আবার আসছে ‘কৃষ’?

তৃতীয় কিস্তির পর থেকেই ‘কৃষ ফোর’ নিয়ে আলোচনা হচ্ছিল। কিন্তু নানা কারণে কৃষ-এর চতুর্থ কিস্তি আসেনি। এই সিরিজের সবগুলো ছবিই বানিয়েছিলেন হৃতিকের বাবা প্রযোজক-পরিচালক রাকেশ রোশান। বেশ কয়েকটি সাক্ষাৎকারে ‘কৃষ ফোর’ প্রসঙ্গে হৃতিক ও তাঁর বাবা জানিয়েছিলেন, ছবির চতুর্থ কিস্তিও তাঁরা বানাবেন। বক্স অফিসে ব্যাপক সাফল্য পায় ‘কৃষ থ্রি’। ফলে সুপারহিরো সিরিজটি এগিয়ে নিয়ে যেতে কোনো বাধা ছিল না। হঠাৎ করে সে আলোচনা থেমে গেলেও ছবির ১৫ বছর পূর্তিতে আবারও ‘কৃষ ফোর’-এর কথা মনে করিয়ে দেন হৃতিক।

ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করা হৃতিকের ভিডিওতে দেখা গেছে, কালো লং কোট পরে আকাশে উড়ছে কৃষ। মুখ থেকে খুলে ফেলে দিয়েছেন মুখোশ। ওই পোস্টে তিনি লিখেছেন, ‘অতীতে যা হওয়ার হয়েছে। দেখা যাক, সামনে কী হয়। কৃষ ফোর।’ হ্যাশট্যাগে তিনি যুক্ত করেছেন, ‘ফিফটিন ইয়ারস অব কৃষ’ এবং ‘কৃষ ফোর’।

কেন কৃষ নিয়ে এত মাতামাতি? হিন্দি ছবির ইতিহাসে ‘কৃষ’ ছাড়াও পাওয়া গিয়েছিল একাধিক সুপারহিরো। তবে কৃষ-এর মতো জনপ্রিয়তা পায়নি কেউ। এমনকি ছবির পরের কিস্তিগুলোতেও টান টান উত্তেজনা অটুট ছিল ছবিটির। এই ছবির মাধ্যমেই হলিউডে দেখা সুপারহিরোদের আদলে যেন দেশীয় এক সুপারহিরোকে পান ভারত ও উপমহাদেশের দর্শকেরা। এটিই ছবির সাফল্যের প্রধান কারণ বলে মনে করেন চলচ্চিত্র সমালোচক ও বাণিজ্যিক ছবির বিশ্লেষকেরা। তবে পাশাপাশি এ–ও জানিয়ে রাখা প্রয়োজন, ‘কৃষ ফোর’ নিয়ে বিস্তারিত তেমন কোনো তথ্য জানাননি ছবির অভিনেতা, প্রযোজক বা পরিচালক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *